সর্বশেষ সংবাদ

আওয়ামী লীগ ১ হাজার বছরেও ক্ষমতার মুখ দেখবেন না : ইনু

আওয়ামী লীগ নেতাদের দিকে ইঙ্গিত করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমি দল করি কিন্তু ঐক্য করি। অনেকে বলেন, কারো নাকি দয়ায় মন্ত্রী হয়েছি। আমি একটা কথাই বলব ঐক্য প্রশ্নে এক টাকা চিনেন? এক টাকা, ১০০ পয়সায় এক টাকা। আপনার ৮০ পয়সা থাকতে পারে কিন্তু আপনি এক টাকার মালিক না। আপনার ৯৯ পয়সা থাকতে পারে কিন্তু আপনি এক টাকার মালিক না। যতক্ষণ এক টাকা হবে না ততক্ষণ ক্ষমতা পাবেন না। আপনি ৮০ পয়সা আর এরশাদ, দিলীপ বড়ুয়া, মেনন আর ইনু মিললে এক টাকা হয়। আমরা যদি না থাকি তাহলে ৮০ পয়সা নিয়ে রাস্তায় ফ্যা ফ্যা করে ঘুরবেন। এক হাজার বছরেও ক্ষমতার মুখ দেখবেন না।’

কুষ্টিয়ার মিরপুরে তার সংসদীয় আসনে জনসভায় বক্তব্য দেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু

মিরপুর, কুষ্টিয়া থেকে ঃ  জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদের সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে বলেছেন, ‘আপনি (আ.লীগ নেতা) আশি পয়সা। আর এরশাদ, দিলীপ বড়ুয়া, মেনন আর ইনু মিললে এক টাকা হয়। আমরা যদি না থাকি, তাহলে আশি পয়সা নিয়ে রাস্তায় ফ্যা-ফ্যা করে ঘুরবেন। এক হাজার বছরেও ক্ষমতার মুখ দেখবেন না।’

আজ বুধবার বিকেলে কুষ্টিয়ার মিরপুরে জাসদের জনসভায় ইনু এসব কথা বলেন। কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলা জাসদের আয়োজনে জনসভায় ইনু সেখানে প্রধান অতিথি ছিলেন।

ইনু বলেন, ‘আমি দেশের জন্য হাসিনার সঙ্গে ঐক্য করেছি, খালেদাকে বর্জন করেছি। জাসদ ঐক্যের মর্যাদা রাখবে, পায়ে পা লাগিয়ে ঝগড়া করবেন না।’
আওয়ামী লীগের কারও নাম উল্লেখ না করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমি জাসদ করি, কিন্তু দলবাজি করি না, পায়ে পা লাগিয়ে ঝগড়া করি না। মারামারি চাই না, আমি শান্তি চাই। তাই বলে জাসদের এটাকে দুর্বলতা ভাববেন না। জাসদের শক্তি আছে, লাঠি আছে। আমরা যদি মনে করি, জাসদের লাঠি যে রাস্তায় যাবে, সেই রাস্তায় আর কেউ থাকবে না।’
বর্তমান সরকারের শরিক জাসদ এবং এর নেতা হাসানুল হক ইনুর আজকের বক্তব্য এলাকায় বেশ আলোচিত বিষয়ে পরিণত হয়। এর পেছনে অবশ্য কারণ রয়েছে।

১ নভেম্বর একই স্থানে মিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে দলটির সদস্য নবায়ন ও সংগ্রহ উপলক্ষে সভা হয়। ওই সভায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ প্রধান অতিথি ছিলেন। জনসভায় জাসদ ও হাসানুল হক ইনুর তীব্র সমালোচনা করে বক্তব্য দেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা। তাঁরা জাসদকে ‘ঢাল নেই তলোয়ার নেই, নিধিরাম সরদার’ বলেও কটাক্ষ করে বক্তব্য দেন।
এর জবাব দিতে গত শনিবার জাসদের নেতা-কর্মীরা সিদ্ধান্ত নেন, পাল্টা জনসভা ও শোডাউন করবেন। তাই আজ দুপুরের পর থেকেই মিরপুর উপজেলা ফুটবল মাঠ প্রায় ১৫ হাজার নেতা-কর্মী ও সমর্থকে ভরে ওঠে। এ সভাতেও স্থানীয় জাসদের নেতারা আওয়ামী লীগের নেতাদের উদ্দেশে বিভিন্ন ধরনের বক্তব্য দেন।

ইনু অভিযোগ করে বলেন, ‘আমি অন্য এমপিদের মতো ডিসি, এসপি আমদানি করি না। ওসি, ইউএনও আমদানি করি না। আমি মনে করি, ডিসি-এসপি, ইউএনও ওসি সাহেবরা আইন অনুযায়ী চলবেন। কারণ, আমার কর্মীরা ডাকাত না, চোর না, নারী নির্যাতনকারী না। আমার ওসির কাছে তদবির করার দরকার নাই। ওসি সাহেব, ইউএনও সাহেব, আপনারা আইন অনুযায়ী চলবেন।’
মন্ত্রী বলেন, ‘কেউ কেউ বলেন, কারও দয়ায় নাকি আমি মন্ত্রী হয়েছি। আমি কারও দয়ায় মন্ত্রী হয়নি, শেখ হাসিনা আমায় বিশ্বাস করে মন্ত্রী বানিয়েছেন। আমি সেই বিশ্বাসের মর্যাদা দিয়েছি।’
ইনু বলেন, ‘ঐক্য প্রশ্নে আমি একটি কথাই বলব, এক টাকা চেনেন? এক শ পয়সায় এক টাকা। আপনার আশি পয়সা থাকতে পারে, কিন্তু এক টাকার মালিক না। নিরানব্বই পয়সা থাকতে পারে, কিন্তু এক টাকার মালিক না। যতক্ষণ এক টাকা হবে না, ততক্ষণ ক্ষমতা পাবেন না।’
মিরপুর উপজেলা জাসদের সভাপতি মহাম্মদ শরীফের সভাপতিত্বে সেখানে কেন্দ্রীয় জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরিন আখতার, জাতীয় নারী জোটের সভাপতি আফরোজা হক রিনা, জেলা জাসদের সভাপতি গোলাম মহসিন, সাধারণ সম্পাদক আবদুল আলীম স্বপন, মিরপুর উপজেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক আহম্মদ আলী প্রমুখ বক্তব্য দেন।

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*