এশিয়া কাপ টুর্নামেন্টের ১ম ম্যাচে বাংলাদেশের বাজিমাত

বাংলাদেশের দেওয়া ২৬২ রানের জবাব দিতে নেমে ৩৫.২ ওভারে শ্রীলঙ্কা অলআউট ১২৪ রানে। হেরেছে ১৩৭ রানে। ২০ সেপ্টেম্বর আবুধাবিতে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে বাংলাদেশ খেলবে আফগানিস্তানের বিপক্ষে।

মুশফিকুর রহিম কী এক দুর্দান্ত ইনিংস খেললেন! ছবি: এএফপি

শ্রীলঙ্কার লক্ষ্য ২৬২ রান। এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে এই লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে দুই ওভার শেষ না হতেই ২২ রান তুলে ফেলেছিল শ্রীলঙ্কা। তখন মনে হয়েছিল শ্রীলঙ্কা হয়তো সহজেই লক্ষ্যে পৌঁছে যাবে। এর পরই চিত্রটা পাল্টে যায়, দ্বিতীয় ওভারের শেষ বলেই লঙ্কান ব্যাটসম্যান কুশল মেন্ডিসকে সাজঘরে ফেরান বাঁহাতি পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। সে ধারাবাহিকতায় নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। তাই ১৩৭ রানের বিশাল ব্যবধানে জয় তুলে নিয়েছে বাংলাদেশ।

তামিম বড় ত্যাগস্বীকার করেছেন আজ। ফাইল ছবি

নিউজ ২১ ডেস্কঃ   কাপের উদ্বোধনী দিনে বাংলাদেশের  শুরুটা ছিল একেবারেই হতাশার। লঙ্কান পেসার লাসিথ মালিঙ্গা ইনিংসের প্রথম ওভারেই লিটন দাস ও সাকিব আল হাসানকে সাজঘরে ফিরেন। কিন্তু ওপেনার তামিম ইকবাল আউট না হয়েই সাজঘরে ফিরেন আঙুলে চোট পেয়ে। হতাশার কথা, এই চোটের কারণে এশিয়া কাপ থেকেও ছিটকে পড়েন তিনি।

প্রথম ওভারেই ওপেনার লিটন দাস এবং ওয়ানডাউনে নামা সাকিব আল হাসানের উইকেট হারিয়ে বসে বাংলাদেশ। হাতে ব্যথা পেয়ে কিছুক্ষণ পর সাজঘরে ফিরে যান আরেক ওপেনার তামিম ইকবাল। এশিয়া কাপের উদ্বোধনী দিনে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে লাল-সবুজের দলের শুরুর এই বিপর্যয় শেষ পর্যন্ত কাটিয়ে উঠেছিল মুশফিকুর রহিম এবং মোহাম্মদ মিঠুনের দৃঢ়তায়। বড় সংগ্রহের পথও দেখিয়েছিল তারা। কিন্তু মিঠুনের আউটের পরই যেন বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ে মড়ক লাগে। আসা-যাওয়া ব্যস্ত হয়ে পড়েন ব্যাটসম্যানরা।

আজ শনিবার দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে অবশ্য এক পাশ আগলে রেখেছেন মুশফিক। ওয়ানতে ষষ্ঠ শতক করে দলকে একটি চ্যালেঞ্জং সংগ্রহ দিয়েছেন তিনিই। বাংলাদেশ করে ২৬১ রান।

মুশফিক ১৪৪ রানের দারুণ একটি ইনিংস খেলেন। যাতে বল খেলেছেন ১৫০টি। আর ১১টি চার ও চারটি ছক্কার মার দিয়ে ইনিংসটাকে সাজিয়েছেন তিনি।

এর আগে ম্যাচের প্রথম ওভারেই লঙ্কান বোলিং তোপে পড়ে বাংলাদেশ। লাসিথ মালিঙ্গার সে ওভারের চতুর্থ বলে ওপেনার লিটন দাস স্লিপে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান কোনো রান না নিয়েই। ওয়ানডাউনে নামা সাকিব আল হাসান পরের বলেই আউট হন শূন্য রানে।

বাংলাদেশ দলের জন্য হতাশার খবর হাতে ব্যথা পেয়ে ওপেনার তামিম ইকবালও ফিরে যান সাজঘরে। পেসার সুরাঙ্গা লাকমলের বল তাঁর গ্লাভসে লাগে। ব্যথা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় এই বাঁহাতি ওপেনারকে।

এরপর দলীয় ১৩৪ রানের মাথায় ৬৮ বলে ৬৩  রান করে মিঠুন সাজঘরে ফিরেন। আর মাহমুদউল্লাহ চার বলে ১ রান করে আউট হন।  সৈকতও আউট হন ১ রান করে।

এর পরই দলের বিপর্যয় এড়াতে দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নেন মুশফিকুর রহিম। তরুণ মোহাম্মদ মিঠুনকে নিয়ে লড়ে যান এই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান।

দীর্ঘদিন পর শ্রীলঙ্কার হয়ে ওয়ানডে ম্যাচ খেলতে নেমে পেসার লাসিথ মালিঙ্গা ছিলেন দারুণ উজ্জ্বল। ১০ ওভারে মাত্র ২৩ রান দিয়ে চার উইকেট তুলে নেন তিনি।

এশিয়া কাপ শেষ তামিমের

এশিয়া কাপ থেকে কি ছিটকে পড়লেন তামিম!

সংবাদমাধ্যম ক্রিকবাজের খবরে বলা হয়েছে, আঙুলে চোটের কারণে তামিমকে অন্তত ছয় সপ্তহ মাঠের বাইরে থাকতে হতে পারে।

আজ শনিবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচের দ্বিতীয় ওভারে সুরাঙ্গা লাকমলের বলে পুল করতে গিয়ে বাঁ-হাতের আঙুলে ব্যথা পান তামিম। এতটাই ব্যথা পান তিনি, এর জন্য হাসপাতালে পর্যন্ত যেতে হয়েছে তাঁকে।

এই কিছুদিন আগে এশিয়া কাপের ক্যাম্পেই ফিল্ডিং প্র্যাকটিস করতে গিয়ে আঙুলে ব্যথা পেয়েছিলেন তামিম। ব্যথা কিছুটা সেরে ওঠায় এশিয়া কাপে খেলতে গেলেও আবার ব্যথা পান এই বাংলাদেশি ওপেনার।

চোট নিয়ে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মাঠে নেমেছিলেন ওপেনার তামিম ইকবাল। কিন্তু চোট পেয়ে ব্যক্তিগত ২ রান করে মাঠ ছাড়েন এই দেশ সেরা ওপেনার। অবস্থা পর্যবেক্ষনের জন্য সরাসরি হাসপাতালে নেয়া হয় তামিমকে। সেখানে তার হাতের এক্সরে করা হয়। এরপর জানা যায় এশিয়া কাপে আর খেলা হচ্ছে না তামিমের।

ম্যাচের দ্বিতীয় ওভারেই চোট নিয়ে মাঠ ছাড়েন তামিম। সুরাঙ্গা লাকমলের বাউন্সের পুল করতে চেয়েছিলেন তামিম। বল লাগে তার গ্লাভসে। মুখে ফুটে ওঠে যন্ত্রণার ছাপ। ছুটে আসেন ফিজিও। একটু পর ব্যথা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় তাকে।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দলীয় ৩ রানে ২ উইকেট হারানোর পর লাকমালের করা ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারের শেষ বলটি লেগ সাইডে খেলতে গিয়ে হাতে চোট পান তামিম। যার ফলে তাৎক্ষনিক মাঠ ছাড়তে বাধ্য হন তিনি।

ব্যথার পরিমাণ বেশি থাকায় চোটের ধরন জানতে এরপর স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। দলীয়সূত্রে এমন খবর পাওয়ার ঘন্টাখানেক পর জানা গেছে এশিয়া কাপই শেষ বাঁহাতি এ ওপেনারের। বাংলাদেশের হয়ে তিন ফরম্যাটেই সর্বাধিক রানের মালিক তামিমের বাঁহাতের কব্জিতে চিড় ধরা পড়ায় দুর্ভাগ্যজনকভাবে দল থেকে ছিটকে যেতে হল তাকে।

আরও পড়ুন:  আবার কেলেঙ্কারিতে শাহাদাত, এবার…

শুধু তাই নয় প্রাথমিকভাবে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী জানা গেছে এ চোটের জন্য কমপক্ষে আগামী ছয় সপ্তাহের জন্য সম্পূর্ণরুপে মাঠের বাইরে থাকতে হতে পারে তাকে।

বাংলাদেশ

বাংলাদেশ রান বল
তামিম অপরাজিত
লিটন ক মেন্ডিস ব মালিঙ্গা
সাকিব ব মালিঙ্গা
মুশফিক ক মেন্ডিস ব থিসারা ১৪৪ ১৫০ ১১
মিঠুন ক কুশল পেরেরা ব মালিঙ্গা ৬৩ ৬৮
মাহমুদউল্লাহ ক ডি সিলভা ব আপোনসো
মোসাদ্দেক ক কুশল পেরেরা ব মালিঙ্গা
মিরাজ ক ও ব লাকমল ১৫ ২১
মাশরাফি ক থারাঙ্গা ব ডি সিলভা ১১ ১৮
রুবেল এলবিডব্লু ব ডি সিলভা ১২
মোস্তাফিজ রানআউট ১০ ১১
অতিরিক্ত (লেবা ৪, নো ১, ও ৭) ১২
মোট (৪৯.৩ ওভারে অলআউট) ২৬১
উইকেট পতন: ১-১ (লিটন, ০.৫ ওভার), ২-১ (মালিঙ্গা, ০.৬), ২-৩ (তামিম অবসর, ১.৬), ৩-১৩৪ (মিঠুন, ২৫.৩), ৪-১৩৬ (মাহমুদউল্লাহ, ২৬.২), ৫-১৪২ (মোসাদ্দেক, ২৭.৬), ৬-১৭৫ (মিরাজ, ৩৩.৪), ৭-১৯৫ (মাশরাফি, ৩৮.৬), ৮-২০৩ (রুবেল, ৪২.৪), ৯-২২৯ (মোস্তাফিজ, ৪৬.৫), ১০-২৬১ (মুশফিক, ৪৯.৩)
বোলিংমালিঙ্গা ১০-২-২৩-৪ (ও ৩, নো ১), লাকমল ১০-০-৪৬-১ (ও ১), আপোনসো ৯-০-৫৫-১, থিসারা ৭.৩-০-৫১-১ (ও ১), দিলরুয়ান ৩-০-২৫-০, ডি সিলভা ৭-০-৩৮-২ (ও ১), শানাকা ৩-০-১৯-০

 

শ্রীলঙ্কা রান বল
থারাঙ্গা ব মাশরাফি ২৭ ১৬
কুশল মেন্ডিস এলবিডব্লু ব মোস্তাফিজ
কুশল পেরেরা এলবিডব্লু মিরাজ ১১ ২৪
ডি সিলভা এলবিডব্লু ব মাশরাফি
ম্যাথুস এলবিডব্লু রুবেল ১৬ ৩৪
শানাকা রানআউট সাকিব/মিরাজ ২২
থিসারা ক রুবেল ব মিরাজ
দিলরুয়ান স্টা. লিটন ব মোসাদ্দেক ২৯ ৪৪
লাকমল ব মোস্তাফিজ ২০ ২৫
আপোনসো ক অতি. ব সাকিব ৩১
মালিঙ্গা অপরাজিত
অতিরিক্ত  (লেবা ১)
মোট (৩৫.২ ওভারে অলআউট) ১২৪
উইকেট পতন: ১-২২ (মেন্ডিস, ১.৬), ২-২৮ (থারাঙ্গা, ২.৬), ৩-৩২ (ডি সিলভা, ৪.৩), ৪-৩৮ (কুশল পেরেরা, ৯.২), ৫–৬০ (শানাকা, ১৬.১), ৬–৬৩ (ম্যাথুস, ১৭.২), ৭–৬৯ (থিসারা, ১৮.৫), ৮-৯৬ (লাকমল, ২৫.২), ৯-১২০ (দিলরুয়ান, ৩৪.১), ১০-১২৪ (আপোনসো, ৩৫.২)।
বোলিং: মাশরাফি ৬–২–২৫–২ , মোস্তাফিজ ৬–০–২০–২, মিরাজ ৭–১–২১–২,  সাকিব ৯.২–০-৩১–১, রুবেল ৪–০–১৮–১, মোসাদ্দেক ৩-০-৮-১
ফল: বাংলাদেশ ১৩৭ রানে জয়ী
ম্যাচ সেরা: মুশফিকুর রহিম

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*