ধর্মীয় মর্যাদায় পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উদযাপিত

বিশ্বনবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) পৃথিবীতে এসেছিলেন তৌহিদের মহান বাণী নিয়ে। প্রচার করেছেন শান্তির ধর্ম ইসলাম। তাঁর জন্ম ও ওফাত দিবস আজ ১২ রবিউল আউয়াল। এই দিনকে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) হিসেবে পালন করেন সারা বিশ্বের মুসলমানেরা।১ হাজার ৪৪৮ বছর আগের এই দিনে আরবের মরু প্রান্তরে মা আমিনার কোল আলো করে জন্ম নিয়েছিলেন সর্বশ্রেষ্ঠ ও সর্বশেষ নবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)। আবার এই দিনেই তিনি পৃথিবী ছেড়ে চলে যান।সারা আরব বিশ্ব যখন পৌত্তলিকতার অন্ধকারে ডুবে গিয়েছিল, তখন মহান আল্লাহ পাক মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-কে বিশ্বজগতের রহমতস্বরূপ পাঠিয়েছিলেন। তিনি ৪০ বছর বয়সে নবুয়ত লাভ করেন। এরপর বিশ্ববাসীকে মুক্তি ও শান্তির পথে আহ্বান জানান। সব ধরনের কুসংস্কার, গোঁড়ামি, অন্যায়, অবিচার ও দাসত্বের শৃঙ্খল ভেঙে মানবসত্তার চিরমুক্তির বার্তা বহন করে এনেছিলেন তিনি। এরপর মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) দীর্ঘ ২৩ বছর এ বার্তা প্রচার করে ৬৩ বছর বয়সে ইন্তেকাল করেন।

নিউজ ২১ ডেস্ক ঃ সারাদেশে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে যথাযথ ধর্মীয় মর্যাদায় সারা দেশে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) পালিত হয়েছে।
গত মঙ্গলবার বিভিন্ন সংগঠনের উদ্যোগে ধর্মীয় ভাবগম্ভীর পরিবেশে আখেরি নবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর পূর্ণাঙ্গ জীবন নিয়ে আলোচনা, সমাবেশ, পবিত্র কোরআন তিলাওয়াত ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এসব ধর্মীয় অনুষ্ঠানে মুসলমানদের কল্যাণে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। ঢাকাসহ দেশের বড় শহরগুলোতে ধর্মীয় শোভাযাত্রার মাধ্যমে ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) পালন করেন ধর্মপ্রাণ মানুষেরা।
মঙ্গলবার ছিল বারোই রবিউল আউয়াল। বিশ্ব সাম্য ও মানবতার বার্তাবাহী বিশ্বনবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) এই দিনে জন্মগ্রহণ করেন। এটি তাঁর ওফাত দিবসও। দিনটিকে মুসলিম বিশ্ব পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) হিসেবে পালন করে। মুসলমানসহ বিশ্বের শান্তিকামী মানুষের কাছে দিনটি অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ।
ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে মঙ্গলবার সরকারি ছুটি পালিত হয়। বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক এ উপলক্ষে বিশেষ ক্রোড়পত্র প্রকাশ করে। বাংলাদেশ বেতার, বাংলাদেশ টেলিভিশন, বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ও রেডিও এ উপলক্ষে বিশেষ অনুষ্ঠানমালা প্রচার করে।
রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক বিভাজক ও ট্রাফিক মোড়ে জাতীয় পতাকা ও কালিমা তায়্যিবা লেখা ব্যানার টানানো হয়। কিছু কিছু ভবনে আলোকসজ্জা করা হয়। ইসলামিক ফাউন্ডেশন গত সোমবার থেকে পক্ষকালব্যাপী অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করেছে। এর মধ্যে বায়তুল মোকাররম উত্তর চত্বরে মাসব্যাপী ইসলামি বইমেলা রয়েছে।

Image may contain: 7 people, people smiling, beard and outdoor
বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলটির মহানগর শাখার উদ্যোগে এবং বিএনপির উদ্যোগে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
বিএমএ মিলনায়তনে বাংলাদেশ মাইজভান্ডারী ফোরাম ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.)-এর তাৎপর্য বিষয়ে আলোচনা ও জশনে জুলুশ অনুষ্ঠান করে।
শাহজাহানপুর রেলওয়ে মাঠে আশেকানে মাইজভান্ডারী অ্যাসোসিয়েশন মহাসম্মেলন, জশনে জুলুশ ও মোনাজাতের আয়োজন করে। সেখানে মহানবীর জীবন নিয়ে আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে শান্তি মিছিল বের করা হয়।
আনজুমানে রহমানিয়া মইনিয়া মাইজভান্ডারিয়া সোহ্রাওয়ার্দী উদ্যানে শান্তি সমাবেশ করে। সেখান থেকে ধর্মীয় শোভাযাত্রা বের করা হয়।

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*